নিউজ টপ লাইন

রাজিবপুরের ৬ বকাটের কান্ড একটি কলেজ ছাত্রীকে ৬ জনের পালা ক্রমে সারারাত জুর পূর্বক গনধর্ষণের ঘটনায় রাজিবপুর থানায় গনধর্ষন মামলা গ্রেফতার ১

মাজহারুল ইসলাম, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
কুড়িগ্রামের রাজিবপুর সদরে একটি বাসায় আটকে রেখে এক কলেজছাত্রীকে ৬জনের পালাক্রমে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পড়ে ওই কলেজ ছাত্রীকে আহত অবস্থায় প্রথমে রাজিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে দ্রত জামালপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার কাচারি পাড়া গ্রামেই এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে রাজিবপুরের বকাটেরা। জানা গেছে ধর্ষিতা কলেজ ছাত্রী রাজিবপুর ডিগ্রী কলেজে পড়া সোনারত অবস্থায় র্মাসীট নেয়ার উদ্ধ্যেশ্যে আসেন। আসার পর ওই বকাটেরা কৌশলে তাকে সারাদিন আটকে রেখেই পালাক্রমে অমানবিক নির্যাতন চালায়। ধর্ষিতার গ্রামের বাড়ী জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার ডাংধরা ইউনিয়নের। ডাংধরা গ্রামের আজিম উদ্দিন এর মেয়ে রিমা আক্তার ১৯ নামে ওই মর্মান্তিক ভাবে পালাক্রমে গনধর্ষন এর শিকার হয়েছে।
রাজিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার বিপাশা রায় বলেন, ‘মেয়েটির প্রচুর রক্তক্ষরণের কারণে অবস্থার অবনতি ঘটেছে। তার ওপর যে নির্যাতন চালানো হয়েছে এটা নিশ্চিত হওয়া গেছে। উন্নত চিকিৎসা ও ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে জামালপুরে পাঠানো হয়েছে।
অভিযোগে জানা গেছে, কাচারিপাড়া গ্রামের মাহবুবুর রহমানের লম্পট ছেলে খোরশেদ আলী অল্প কয়েকদিন ধরে ওই কলেজছাত্রীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে প্রেমের ফাঁদ তৈরি করে। এই স¤¤্রর্কের সূত্র ধরে খোরশেদ আলী মোবাইল ফোনে মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে। এর পর পরিকল্পিতভাবে তার ৬জন বকাটে বন্ধু একই গ্রামের আরিফুল ইসলাম এর বাড়িতে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে খোরশেদ আলী ও তার ৬ বন্ধু মিলে গনধর্ষণ শুরু করে। করার পর অবস্থার চরম বেগতিক দেখে তাড়াহুরা করে মেয়েটিকে খোরশেদ আলীর দুই বন্ধু আল আমিন ও আরিফুল ইসলাম মেয়েটিকে রাজিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জররী বিভাগে রেখে পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে রাজিবপুর থানার ওসি পৃথ্বীশ কুমার সরকার,  গনধর্ষন এর ঘটনাটি শিকার করে বলেন থানায় মামলা হয়েছে।, এবং ৬জনের মধ্যে একজনকে আটক করা হয়েছ্ ে আরও ৫জনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তবে আমরা ম্যাইন ভিক্টিমের সঙ্গে সরসরি কথা বলতে পারিনি আসলে কয়জন এই ধর্ষনের সঙ্গে জরীত ছিলো সেটা এখনও  সঠিক হতে পারিনি।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top