নিউজ টপ লাইন

প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ থেকে মারণ ব্যাধি বাসা বাঁধছে শরীরে

 ডেস্ক: প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ। সুস্থ হতে ঢোঁক ওষুধে। রোগ সারাতে গিয়ে হচ্ছে হিতে বিপরীত। মারণ ব্যাধি বাসা বাঁধছে শরীরে। গর্ভবতী মহিলাদের বিপদ বাড়ছে। সম্ভাবনা বাড়ছে প্রস্টেট ও ব্রেস্ট ক্যানসারের। জ্বর হোক বা সর্দি-কাশি, বাচ্চার পেট খারাপ কিংবা গর্ভবতী মায়ের নানা ওষুধ, ভিটামিন। কাচের শিশিতে ওষুধ এখন আউট। প্লাস্টিকের বোতল ইন। কিন্তু জানেন কি, মারাত্মক বিষ ঢুকছে আপনার শরীরে? বিশেষ করে মহিলাদের শরীরে ডেকে আনতে পারে ভয়ঙ্কর বিপদ। অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেসের চিকিত্সকরা বলছেন, দীর্ঘদিন ধরে প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ খেতে থাকলে এর প্রভাব পড়ে শিশু, বয়স্ক, গর্ভবতী মহিলা ও যুবতীদের শরীরে।বিশেষ করে গর্ভবতী মহিলাদের প্রসবের সময় নানা উপসর্গ দেখা দিতে পারে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমতে থাকে। গর্ভপাতের হার বাড়তে থাকে। সময়ের আগেই জন্ম এবং জন্মের সময় শিশুর ওজন অনেক কম থাকতে পারে। জন্ম নিতে পারে প্রতিবন্ধী শিশু। ইউটেরাসে সংক্রমণ ঘটতে পারে। বাধা পায় শিশুর বিকাশ। শুধু তাই নয়, ওই শিশুকন্যারা বড় হলে তার প্রস্টেট এবং ব্রেস্ট ক্যানসারের সম্ভাবনা বেড়ে যায়। কন্যাশিশুরা বেড়ে ওঠার সময় তাদের চরিত্রগত আমূল পরিবর্তন ঘটতে পারে।

কলকাতার অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ হাইজিন অ্যান্ড পাবলিক হেলথের রিপোর্টে মিলেছে মারাত্মক তথ্য। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নির্দেশে করা পরীক্ষা নিরীক্ষায় ওষুধের প্লাস্টিক বোতলে মিলেছে ক্ষতিকর রাসায়নিক।

অ্যান্টিমনি, ক্রোমিয়াম, সীসার মতো রাসায়নিকের প্রভাব মানব শরীরে সাঙ্ঘাতিক। এই রিপোর্ট পাওয়ার পরেই চিকিত্সকদের একটি সরকারি প্যানেল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রককে একটি চিঠি লিখেছে। তরল ওষুধের ক্ষেত্রে প্লাস্টিক বোতল ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করতে অনুরোধ করেছেন তাঁরা।

 

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top