নিউজ টপ লাইন
ছাত্রীর আতœহত্যার অভিযুক্ত বখাটে আলম গ্রেফতার

ছাত্রীর আতœহত্যার অভিযুক্ত বখাটে আলম গ্রেফতার

খোরশেদ আলম লাকসামঃ
কুমিল্লার লাকসামে ফেসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেয়ার অপমান সইতে না পেরে স্মৃতি আক্তার নামের এক কলেজ ছাত্রীকে আতœহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে অভিযুক্ত আলমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। স্মৃতি (১৮) জেলার লাকসাম নওয়াব ফয়জুন্নেছা সরকারি কলেজের দ্বাদশ ব্যবসায় শিক্ষা শাখার ২য় বর্ষের ছাত্রী। আতœহত্যার আগে ৫ পৃষ্ঠার একটি সুইসাইড নোটে তার মৃত্যুর জন্য ওই আলমকে দায়ী করে যায়। আলম লাকসাম পৌর শহরের রাজঘাট (পশ্চিমগাঁও) এলাকার লাল মিয়ার ছেলে। সে এলাকার চিহ্নিত বখাটে ও ছাত্রলীগের কর্মী হিসাবে পরিচিত। পুলিশ পৌরসভার পশ্চিমগাঁও এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। স্থানীয় সূত্রে জানায় উপজেলার কান্দিরপাড় ইউনিয়নের অশ্বতলা গ্রামের বিল্লাল হোসেনের মেয়ে স্মৃতি আক্তার নিজ ঘরের ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁসিতে ঝুলে আতœহত্যা করে। ওইদিন স্মৃতির মা অহিদা বেগম বাদী হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলাও দায়ের করেন। স্মৃতির পিতা বিল্লাল হোসেনের লাকসাম রেলওয়ে জংশন এলাকায় একটি হোটেলের কর্মচারী। স্মৃতিকে দাফনের পরিবারের লোকজন স্মৃতির লিখে যাওয়া ৫ পৃষ্ঠার একটি সুইসাইড নোট খুঁজে পান। ওই সুইসাইড নোটে স্মৃতি তার মৃত্যুর জন্য বখাটে আলমকে দায়ী করেন। সুইসাইড নোট পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও স্মৃতির এই সুইসাইড নোটের বিষয়টি ভাইরাস হয়ে পড়ে। স্মৃতির মা অহিদা বেগম জানান, আলম নামের ওই বখাটে প্রায়ই তার মেয়েকে উক্ত্যক্ত করতো। আলম তাকে হত্যা করবে বলেও হুমকি দেয়। বিষয়টি আলমের পরিবারকে জানানোর পর সে আর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। স্মৃতির নামে ফেসবুকে ভুয়া আইডি খুলে বিভিন্ন অপপ্রচার চালাতে শুরু করে।  স্মৃতির ছবি এডিট করে অশ্লীলভাবে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়। এছাড়া স্মৃতির নামের ওই আইডি থেকে বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে অশ্লীল ভাষায় মন্তব্য করতো আলম। স্মৃতি বিষয় গুলো জানার পর লজ্জায় অপমানে আতœহত্যার পথ বেছে নেয়। স্মৃতির বাবা বিল্লাল হোসেন জানান, স্মৃতির ছবি অশ্লীলভাবে এডিট করে তা ফেসবুকে পোস্ট করার অপমানে কিছুদিন থেকে কলেজ যাওয়া বন্ধ করে দেয়। আমরা কলেজ না যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে সে কিছুই বলতো না, আলমের কারণেই আমার ৩০/৭/২০১৭ তারিখে মেয়ে আতœহত্যার করে আমরা তার বিচার চাই। লাকসাম-মনোহরগঞ্জের সিনিয়র এএসপি সার্কেল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান জানান লাকসাম থানায় মামলা হওয়ার পর উপরস্থল কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়ার পর ১ ঘণ্টার ভিতরে বখাটে আলমকে লাকসাম পশ্চিমগাঁও থেকে গ্রেফতার করে। এইআই বোরহান উদ্দিন ভুঁইয়া বখাটে আলমকে গ্রেফতার করেন ০১/৮/১৭ ইং। লাকসাম থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ আশাফ উদ্দিন জানান মামলা নং ২২, ২৮/৭/১৭ তারিখে তথ্য প্রযুক্তির আইনের ধারা ৫৭/২ দন্ড বিধি-৩০৬। বখাটে আলম কলেজ ছাত্রী স্মৃতিকে প্রায়ই উক্ত্যক্ত করতো, প্রাথমিক তদন্তে তা প্রমাণ পাওয়া গেছে, তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। লাকসাম-মনোহরগঞ্জের সিনিয়র এএসপি সার্কেল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান জানান দেশে চাঁদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসীরা ও বখাটে লোকেরা যতই শক্তিশালী হোক না কেন, জনগনের সহযোগীতায় তাদেরকে আমরা আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করে যাচ্ছি।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top