নিউজ টপ লাইন
এমপি মাহবুব আলী চুনারুঘাট বাসীর জন্য ৫০ কোটি  টাকার বরাদ্দ নিয়ে আসলেন

এমপি মাহবুব আলী চুনারুঘাট বাসীর জন্য ৫০ কোটি টাকার বরাদ্দ নিয়ে আসলেন

আব্দুর রাজ্জাক রাজুঃ
এমপি মাহবুব আলীর প্রচেষ্টায় চুনারুঘাটে  ৫০ কোটি টাকার উন্নয়ন হচ্ছে। হবিগঞ্জ ৪ ( মাধবপুর-চুনারুঘাট) নির্বাচনী এলাকার সাংসদ এড. মাহবুব আলীর আন্তরিক প্রচেষ্টায় গ্রামীণ জনপদের অবকাঠামো এবং সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করায় গ্রামীণ জনপদের দৃশ্যপট চিত্র পাল্টে যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই তিনি চুনারুঘাটের  উন্নয়নে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর নিকট থেকে প্রায় পঞ্চাশ লক্ষ টাকার ও বেশী উন্নয়ন প্রকল্প কাজ নিয়ে এসেছেন। প্রকল্প গুলো-চুনারুঘাট হইতে সার্টিয়াজুড়ি সড়ক বর্ধিত করন সহ উন্নয়ন ৩৭ কোটি টাকা (বাস্তবায়নে সড়ক ও জনপদ বিভাগ) শ্রীকুটা বাজার হইতে মোড়ার বন্দ সৈয়দ নাসির উদ্দিন (র.) এর মাজার পর্যন্ত সড়ক বর্ধিত করন ও উন্নয়ন ৯ কোটি টাকা (বাস্তবায়নে সড়ক ও জনপদ বিভাগ) সাতছড়ি ত্রিপরা পল্লী সংযোগ সেতু নির্মান ২ কোটি ১৬ লক্ষ টাকা (বাস্তবায়নে-এলজিইডি) রানীগাও নুর কালেক্ট্ররের বাড়ি সংলগ্ন করাঙ্গী নদীতে সেতু নির্মান ২ কোটি ১৫ লক্ষ টাকা (বাস্তবায়নে -এলজিইডি) লস্করপুর-লতিবপুর সড়কে সেতু নির্মান ২ কোটি টাকা (বাস্তবায়নে-এলজিইডি) সাটিয়াজুড়ি ইউনিয়নে করাঙ্গী নদীতে সেতু নির্মান ১ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা (বাস্তবায়নে এলজিইডি) এর মধ্যে সাটিয়াজুড়ি সেতুর কাজ ইতিমধ্যই শেষ হয়েছে এবং সাতছড়ি সেতুর কাজ চলছে। অত্যান্ত বিনয়ী সাংসদ মাহবুব আলী গ্রামীণ জনপদের উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করে কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচি ‘কাবিখা’ ও কাজের বিনিময়ে টাকা ‘কাবিটা’, টেস্ট রিলিফ ‘টিআর’ ও ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচি এবং এলজিএসপি প্রকল্পের মাধ্যমে গ্রামীণ জনপদের রাস্তা-ঘাট, সে-কালভ্রাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান এবং বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক উন্নয়ন করে যাচ্ছেন। এছাড়াও ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে গ্রামীণ জনপদের বিভিন্ন এলাকায় সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। উপজেলার প্রত্যন্ত ও দুর্গম পল্লী এলাকার মানুষের জীবনমান উন্নয়ন ও যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ করতে সড়ক যোগাযোগ ও গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষন উন্নয়নে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মসূচী গ্রহণ করেছেন। সুতাং ছড়ায় ১৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে কালর্ভাট নির্মান করায় কালিশিড়ি -চানঁপুর বাজারে সংযোগ হয়েছে। ২৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে কালেঙ্গা পাহাড়ী জনপদে সংযোগ সড়কে সেতু নির্মান করা হয়েছে। এসব প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করায় প্রত্যন্ত ও দুর্গম পল্লীর বাসিন্দাদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনা বিরাজ করছে। গ্রামীণ জনপদের এসব এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে সড়কে নতুন সেতু-কালভ্রাট নির্মাণ ও সংস্কার না হওয়ায় এসব এলাকার হাজার হাজার মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছিল এবং প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উপজেলা ও জেলা সদরে যাতায়াত করতো লোকজন। এসব হাজারো মানুষের দুঃখ লাঘব ও এলাকার অর্থনৈতিক উন্নতি সাধনের জন্য এলাকায় সড়কে-নতুন সেতু-কালভ্রাট নির্মাণ ও সংস্কারের কাজ শুরু করেছেন তিনি। এসব সড়কে নতুন সেতু-কালভ্রাট নির্মাণ ও সংস্কার কাজ সম্পন্ন করা হলে মানুষের জীবনমান উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির পাশপাশি গ্রামীণ জনপদের চিত্র পাল্টে যাবে বলে অভিজ্ঞ মহলের অভিমত। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ‘পিআইও’ মোঃ মাসুদুল ইসলাম বলেন, এমপি মহোদয়ের নির্দেশে কঠোরভাবে সেতুর নির্মাণকাজ দেখভাল করা হয়েছে। তিনি বলেন, এসব সেতুর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ায় প্রত্যন্ত এলাকায় গ্রামীণ জনপদের হাজারো মানুষের দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ লাঘব হয়েছে। এছাড়া তিনি চুনারুঘাটের মানুষের প্রাণের দাবী বাল্লা স্থলবন্দরের কাজ দ্রুত বাস্তবায়ন ও ইকোনোমিক জোন স্থাপনে কাজ করে যাচ্ছেন।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top